প্লাসিবোঁএর ভূমিকায় পাথর


প্লাসিবোঁ একটি ফরাসি শব্দ, যা চিকিৎসা বিজ্ঞানের একটি টার্ম বা পরিভাষা। ধরুন, একজন রোগীকে ১০০ ধরনের পরীক্ষা করেও কোনো রোগই ধরা পড়লো না। অথচ রোগী বলছে তার পেটে অসহ্য ব্যথা। এ অবস্খায় চিকিৎসকরা একমত হলেন যে এটা একটা সাইকোসোমাটিক পেইন- অর্থাৎ পুরোপুরি মানসিক সমস্যা থেকে এই ব্যথার উৎপত্তি। তখন রোগীকে ওষুধ হিসেবে খুব জমকালো শিশিতে কিছু ট্যাবলেট দেওয়া হলো। বলা হলো এটাই তার ব্যথার ওষুধ, একমাস খেতে হবে।

রোগী দশদিনের মাথায়ই হাসিমুখে এসে জানালো তার ব্যথা সম্পূর্ণ সেরে গেছে। আসলে, তাকে যা দেওয়া হয়েছিল- তা কোনো ওষুধই ছিল না। হয়তো বা সাধারণ কিছু ভিটামিন ট্যাবলেট ছিল মাত্র। এটাই প্লাসিবোঁ। রোগীকে একটা বিশ্বাসের অকারে রেখে একধরনের মনোচিকিৎসা করা হল।

আমি মনে করি, পাথরের একধরনের প্লাসিবোঁ প্রতিক্রিয়া রয়েছে। রাসায়নিক প্রতিক্রিয়া, রেডিয়েশন- এসবের বাইরেও পাথর ব্যবহারকারীর মনে একটি অবিশ্বাস খুব শাক্তিশালীভাবে কাজ করে। ফলে এটা একটা সাইকোথেরাপির ভূমিকা নেয়। তার আত্মবিশ্বাসের মাত্রা বেড়ে যায়। এভাবেই আসে তার সাফল্য।

একজন জাতক না-জেনে একটি নকল পাথর ব্যবহার করেও উপকার পেয়ে যেতে পারেন। সেক্ষেত্রে পাথরটিকে তো পুরোপুরি প্ল্যসিবোঁ আখ্যা দিতেই হবে।